চট্টগ্রাম বিভাগের ৮ জনসহ দেশে আরো ৪৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৪৭

দেশে করোনা,মৃত্যু,শনাক্ত,আক্রান্ত বাড়ল
সংগৃহিত ছবি

দেশের খবর মহামারী : দেশে ফের বেড়েছে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রাম বিভাগের ৮জনসহ সারাদেশে নতুন করে ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৩০ জন পুরুষ এবং ১৩ জন নারী।

তাছাড়া একই দিন ২৪ ঘন্টার মধ্যে সারাদেশে নতুন করে এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে ১ হাজার ৪শ ৪৭ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮ লাখ ৯ হাজার ৩১৪ জনে।

আজ শনিবার (৫ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪৩ জন মারা গেছেন। গত ৯ মে’র পর গত ২৬ দিনে এই ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে একদিনে এত বেশি মানুষ মারা যায়নি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৪৩ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১২ জন। এছাড়া চট্টগ্রামে ৮, রাজশাহীতে ১২, খুলনায় ৫, ময়মনসিংহে ২, সিলেটে ১ এবং রংপুরে ৩ জন মারা গেছেন।

এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৮০১ জনে। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৪৩ জনের মধ্যে একজন বাসায় এবং বাকিরা হাসপাতালে মারা গেছেন।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ২১ জনেরই বয়স ৬০ বছরের বেশি। এছাড়া ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১৩, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ২ এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের ৫ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের ১ জন এবং ০ থেকে ১০ বছরের একজন রয়েছেন।

এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে মোট মারা যাওয়া ১২ হাজার ৮০১ জনের মধ্যে পুরুষ ৯ হাজার ২৩১ জন এবং নারী ৩ হাজার ৫৭০ জন।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের মতোই ৫০৯টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তবে আগের দিনের তুলনায় নমুনা পরীক্ষা কমেছে। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ১৮ হাজার ১৫১টি।

সেখানে এদিন ১২ হাজার ৭৬৬টি নমুনা সংগ্রহ করে আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১৩ হাজার ১১৫টি। এ নিয়ে দেশে মোট ৬০ লাখ ৩৪ হাজার ২৬০টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো। মোট পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪১ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৬৭ জন। সংক্রমণ থেকে আগের দিন ১ হাজার ৭২৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমিত ব্যক্তিদের মধ্যে ৭ লাখ ৪৯ হাজার ৪২৫ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন। সংক্রমিত ব্যক্তিদের সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৬০ শতাংশ।

ডিখ/সৃষ্টি