বিধ্বস্ত সে শ্রীলঙ্কার রাজপথে এখন বিজয়ের হাসি!

বিধ্বস্ত-শ্রীলঙ্কা-রাজপথে-হাসি

খেলাধুলা ডেস্ক : চার মাসেরও বেশি সময় ধরে চলে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ। জ্বালানি, খাদ্য ও ওষুধ আমদানির ব্যয় মেটাতে যে দেশকে দীর্ঘদিন দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

সেই বিধ্বস্ত দেশকে বহুদিন পর মুখে হাসতে দেখা গেল। আর এই হাসি ফিরিয়ে দেওয়ার উৎস ক্রিকেট। দ্বীপ রাষ্ট্রটিকে এই কঠিন সময়ে লঙ্কানদের জন্য দারুণ মুহূর্ত এনে দিলো তাদের ক্রিকেট দল। কলম্বোর বিক্ষুব্ধ রাজপথে এখন চলছে বিজয় উৎসব।

ব্যাট-বলের এই ক্রিকেট যে সবকিছুই পারে সেটির প্রমাণ আবারো দেখলো ক্রিকেট বিশ্ব। ১১ সেপ্টেম্বর এশিয়া কাপের এবারের আসরের ফাইনাল জিতেছিল শ্রীলঙ্কা দল।

আজ মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ট্রফি হাতে দেশটিতে পৌঁছে এয়ারপোর্ট থেকে সোজা রোড শো করতে দেখা গেল লঙ্কান ক্রিকেটারদের।

কয়েক মাস আগে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক চাবিকাঠি তাসের ঘরের মত ভেঙে যায়! এরপরই দেশটিতে শুরু হয় নানা সমস্যা। খাবার সমস্যা, অর্থনৈতিক, ডিজেল-বৈদ্যুতিক ঘাটতি সবমিলিয়ে বেশ টালমাতাল অবস্থায় দিন পারছিল লঙ্কান মানুষরা।

অবশেষে দেশটিতে কিছু সময়ের জন্য হলেও সুখের অনুভূতি ফিরিয়ে দিয়েছেন দেশটির ক্রিকেটাররা। কেননা এশিয়া কাপ ফাইনাল জয়ের পর আজ মঙ্গলবার দেশে ফিরেই ট্রফি নিয়ে শানাকারা করেছেন রোড শো।

ক্রিকেট শ্রীলঙ্কার ভেরিফাইড পেজের ভিডিওতে দেখা যায়, দেশে ফিরে এয়ারপোর্ট থেকে সোজা খোলা ট্রাকে করে ট্রফি হাতে দেশটির জনসাধারণ মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করছেন হাসারাঙ্গা-শানাকারা। সেসময় দেশের মানুষের মুখে তৃপ্তির যে হাসিটা দেখা গিয়েছে এটা হয়তো গেল কয়েকমাসে কেউ দেখেনি।

খোলা ট্রাকে চড়ে অধিনায়ক শানাকাকে বেশ রোমাঞ্চিত মনে হচ্ছিল। ট্রফি হাতে রেখে বারবার নিচে থাকা জনমানুষের সাথে কথা বলতে দেখা যায় এই অধিনায়ককে।

এমন দৃশ্যের পর দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়ের মন ছুঁয়ে তৈরী হয়েছিল এক আবেগঘন মুহুর্ত। ব্যাট-বলের এই ক্রিকেট কতকিছুই করতে না করতে পারে, যার প্রমাণ একটা ভঙ্গুর দেশের মুখে বিজয়ের হাসি।

ডিখ/প্রিন্স