সার্কাস দেখে টুইঙ্কলের প্রশ্নে বিয়ে নিয়ে কি বললেন অক্ষয়!

সার্কাস,টুইঙ্কল, বিয়ে,অক্ষয়

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের অন্যতম সফল তারকা জুটি অক্ষয় কুমার-টুইঙ্কল খন্নার। দুজনের ২২ বছরের বিবাহিত জীবনে কত কিছুই ঘটেছে।

ভালো সময় যেমন কেটেছে, তেমনই একাধিক অভিনেত্রীর সঙ্গে নাম জড়িয়েছে অক্ষয়ের। কিন্তু যে কোনও পরিস্থিতি বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে যিনি সামাল দিয়েছেন, তিনি অক্ষয়ের স্ত্রী টুইঙ্কল।

ইন্ডাস্ট্রির সবার কাছে টিনা নামেই পরিচিত তিনি। দিন কয়েক আগেই ছিল টুইঙ্কলের জন্মদিন। সেদিন স্বামী-সন্তানদের নিয়ে প্রকৃতির মধ্যে জন্মদিন উদ্‌যাপন করতে দেখা যায় তাকে।

এবার স্বামীর সঙ্গে সার্কাস দেখতে যান টুইঙ্কল। সেখানেই একটি বিশেষ খেলা দেখে বিয়ে নিয়ে এমন মন্তব্য করে বসেন অভিনেতা।

সম্প্রতি অক্ষয় কুমার নিজের অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, ‘পুরনো দিনের স্মৃতি তাজা করতেই পরিবারকে নিয়ে সার্কাস দেখতে গিয়েছিলাম। সেখানেই দেখলাম স্টান্টম্যান গোলাকার বস্তুর মধ্যে বাইক নিয়ে ঘুরেই চলেছেন।’

যদিও বাইক নিয়ে এই খেলা খুব জনপ্রিয় যে কোনও মেলায়। তবে, এই ধরনের খেলা সম্পর্কে অজ্ঞ টুইঙ্কল। কৌতূহলের বশে স্বামী অক্ষয়কে জিজ্ঞেস করেন, ‘এই খেলাকে কী বলে?’

খানিক ভেবে অক্ষয় বলেন, ‘মত কা কুয়া বা মরণফাঁদ।’ বুঝতে না পেরে দ্বিতীয় বার ফের প্রশ্ন টুইঙ্কলের। তবে এবার আর উত্তর না দিয়ে ক্যামেরার দিকে তাকান অক্ষয়। ভিডিওর ক্যাপশনে লেখেন, ‘স্ত্রী জিজ্ঞেস করল, এই খেলাটাকে কী বলে? যদি বলতে পারতাম… বিয়ে।’

অভিনেতার এমন উপলব্ধি শুনে পোস্টের মন্তব্য বক্সে অভিনেত্রী অমৃতা রাওয়ের স্বামী আরজে অনমোল লেখেন, ‘আক্কি ভাই, আপনি তো ভালো ভাবেই জানেন এই কথাটা মুখ ফস্কে বলে দিলে মৃত্যুকূপের ভিতরে কাকে থাকতে হত!’ এই ভাবেই চলতে থাকে বিয়ে নিয়ে রসিকতা।

২০০১ সালের ১৭ জানুয়ারি চারহাত এক হয় অক্ষয়-টুইঙ্কলের। বিয়ের পরই অভিনয় ছেড়ে লেখালিখিতে মন দেন টুইঙ্কল।

দেশের খবর/প্রিন্স