সংসদে আজ শেষ ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

জঙ্গি, বাংলাদেশ, বিশ্বে, রোল মডেল

জাতীয় ডেস্ক : চলতি একাদশ জাতীয় সংসদের ২১তম অধিবেশন শুরু হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায়। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংবিধানে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর এই অধিবেশন আহ্বান করেছেন।

এটা ইংরেজি নতুন বছর ২০২৩ সালের প্রথম অধিবেশন। বছরের প্রথম অধিবেশনকে শীতকালীন অধিবেশনও বলা হয়ে থাকে।

অধিবেশন শুরুর আগে বেলা ৩টায় সংসদ ভবনে সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠক হবে। এই বৈঠকে এবারের অধিবেশনের মেয়াদ, অধিবেশন শুরুর সময় এবং আলোচ্যসূচি ঠিক করা হবে।

কয়েকটি কারণে এবারের অধিবেশন যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনি আবেগেরও। এমনকি কিছুটা অন্যরকমও বলা যেতে পারে। সংবিধান অনুযায়ী নতুন বছরের প্রথম অধিবেশনের আজ প্রথম বৈঠকে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে ইতিমধ্যে রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদন করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি হিসেবে এটিই হবে তার সংসদ অধিবেশনে দেওয়া শেষ ভাষণ।

কারণ, আগামী এপ্রিলে রাষ্ট্রপতি হিসেবে তার মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে। সংবিধান অনুযায়ী, ফেব্রুয়ারিতেই নতুন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করা হবে। রাষ্ট্রপতি হিসেবে সংসদ অধিবেশনে আবদুল হামিদের শেষ ভাষণের কারণে এবারের অধিবেশনে অন্যরকম আবেগ কাজ করছে।

রাষ্ট্রপতির আগমন ও অধিবেশন উপলক্ষ্যে সংসদ সচিবালয় ইতিমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। বরাবরের মতো এবারও রাষ্ট্রপতিকে সংসদ ভবনে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানানো হবে। ভাষণ শেষে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন আবদুল হামিদ। সংবিধান অনুযায়ী, আবদুল হামিদের আবারও রাষ্ট্রপতি হওয়ার সুযোগ নেই।

সংবিধানের ৫০(২) অনুচ্ছেদে বলা আছে, ‘একাধিক্রমে হউক না হউক—দুই মেয়াদের অধিক রাষ্ট্রপতি পদে কোনো ব্যক্তি অধিষ্ঠিত থাকিবেন না।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক গতকাল বুধবার রাজধানীর বিচার প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে এখন পর্যন্ত সংবিধান সংশোধনের কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই।

নির্ধারিত সময়েই নতুন রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হবেন। যেহেতু তিনি (আবদুল হামিদ) দুই টার্ম থেকেছেন, সংবিধান অনুসারে তিনি আর থাকতে পারবেন না। তাই নতুন একজন নির্বাচিত হবেন।

জানা গেছে, আজ রাষ্ট্রপতি ভাষণ দেওয়ার পর শুক্র ও শনিবার দুই দিন বিরতি দিয়ে ৮ জানুয়ারি রোববার সংসদের বৈঠক বসবে। ঐ দিন রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব আনবেন সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী (লিটন চৌধুরী)।

আসন্ন অধিবেশনের পুরো সময় জুড়েই ঐ ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনা করবেন সংসদ সদস্যরা।

দেশের খবর/প্রিন্স