সীতাকুণ্ড মহাসড়কে নির্মাণসামগ্রী রাখায় ৫ জনকে জরিমানা

সীতাকুণ্ড, মহাসড়কে, নির্মাণসামগ্রী,জরিমানা

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড অংশে সড়কের ওপর পাথর, বালু ও ইট রেখে সাধারণ মানুষের চলাচলে বাধা সৃষ্টি করার অভিযোগে ৫ বিক্রেতাকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার (৯ জানুয়ারী) দুপুরে সীতাকুণ্ড মডের থানা ও বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার পুলিশের সহায়তায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানার টাকা আদায় করেন ম্যাজিস্ট্রেট।

অভিযানের নের্তৃত্ব দেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো, শাহাদাত হোসেন।

মহাসড়কের পাশে ইট ও বালু রেখে ফুটপাতে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির দায়ে উপজেলার ছোট কুমিরা বাজার এলাকার রাহাত ট্রেডার্সের মালিক মো. ওসমান গনিকে ১০ হাজার টাকা, নাজমা ট্রেডার্সের মো. আবির হাসানকে ১০ হাজার, মো. সেলিমকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

একই দিনে উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ঘোড়ামরা ফকিরহাট এলাকার আল ফরিদ এন্টার প্রাইজের মালিক ফরিদ উদ্দিনকে ২০ হাজার, গুল আহম্মদ জুট মিলস এলাকায় এমরান এন্টার প্রাইজের মো. এমরান ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহাদাত হোসেন বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দুই পাশে ফুটপাত দখল করে এক শ্রেণীর মানুষ ইট, বালুর ব্যবসা করে জনসাধারণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।

এমন অভিযোগ পেয়ে টিম নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মহাসড়কে নির্মাণ সামগ্রী রাখার প্রমাণ মেলে।

অভিযানে মোট ৫ বিক্রেতাকে ক্রেতা সেজে ঘটনাস্থলে ডেকে এনে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতের জন্য তাদের সতর্ক করে দেওয়া হয়।

দেশের খবর/প্রিন্স