এক মাথা-চার হাত, চার পা নিয়ে অদ্ভুত শিশুর জন্ম

চার পা-শিশু-জন্ম

শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে চার হাত, চার পা বিশিষ্ট অদ্ভূত এক নবজাতক শিশুর জন্ম দিয়েছেন হোসনে আরা বেগম (২৬) প্রসূতি নারী।

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) রাতে জন্ম নেওয়া শিশুটিকে শনিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, প্রসূতি হোসনে আরা বেগম সুস্থ রয়েছেন। হোসনে আরা শ্রীবরদী উপজেলার গিলাগাছা গ্রামের রফিক মিয়ার স্ত্রী। তাদের সংসারে এর আগে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এটি তাদের দ্বিতীয় ছেলে সন্তান।

জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসাকরা জানান, ওই অদ্ভূত নবজাতক শিশু সুস্থ রয়েছে। তবে তার শরীরের স্বাভাবিক গঠন ফিরিয়ে আনতে সার্জারী প্রয়োজন হওয়ায় শনিবার সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নবজাতক দেখতে আসা আমিনা খাতুন বলেন, আমার এক বান্ধবীর কাছ থেকে শুনে দেখতে আসলাম, এসে দেখি অদ্ভূত এক শিশু। চার হাত, চার পা। আমি জীবনেও এমন শিশু দেখিনি।

জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) খায়রুল কবির সুমন বলেন, গর্ভকালীন সময়ে চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতীত উচ্চমাত্রার অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ সেবন অথবা পিল সেবন করলে এ ধরনের জন্মগত ত্রুটি হতে পারে।

এছাড়া জিনগত কারণেও হতে পারে। তবে শিশুটিকে অস্ত্রোপচার করলে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে পারে। এখন পর্যন্ত প্রসূতি সুস্থ আছে বলে জানান তিনি।

দেশের খবর/প্রিন্স