চসিকের প্রকল্প পরিচালককে মারধর: মূল আসামি গ্রেফতার

চসিক-প্রকল্প-পরিচালক

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক গোলাম ইয়াজদানীর ওপর হামলার ঘটনার আরেক ঠিকাদার মো. সাহাব উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা (উত্তর) পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাহাবুদ্দিন জানায়, তিনি ঘটনার পর গ্রেপ্তার এড়াতে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে ছিলেন।

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত আড়াইটায় খুলশী থানাধীন পশ্চিম বাঘঘোনা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নগর গোয়েন্দা (উত্তর-দক্ষিণ) পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার নিহাদ আদনান তাইয়ান বলেন, চসিকের উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক গোলাম ইয়াজদানীর ওপর হামলার ঘটনায় ঠিকাদার মো. সাহাব উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছি।

উল্লেখ্য, রবিবার (২৯ জানুয়ারি) বিকালে চসিকের টাইগারপাস এলাকায় অবস্থিত অস্থায়ী কার্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক গোলাম ইয়াজদানীর ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় চসিকের নিরাপত্তা কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন বাদী হয়ে এদিন রাতে খুলশী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় চসিকের তালিকাভুক্ত ১০জন ঠিকাদারকে আসামি করা হয়।

আসামিরা হলেন– চসিকের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এস জে ট্রেডার্সের সাহাব উদ্দিন, শাহ আমানত ট্রেডার্সের কংকন, মাসুদ এন্টারপ্রাইজের মো. ফেরদৌস, শাহ আমানত ট্রেডার্সের সুভাষ, মেসার্স খান করপোরেশনের হাবিব উল্লাহ খান, মেসার্স নাজিম অ্যান্ড ব্রাদার্সের নাজিম, মেসার্স রাকিব এন্টারপ্রাইজের ফিরোজ, ইফতেখার অ্যান্ড ব্রাদার্সের ইউসুফ, জ্যোতি এন্টারপ্রাইজের আশীষ বাবু এবং অজ্ঞাত পরিচয়ের ফরহাদ।

রাতেই চার ঠিকাদারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

দেশের খবর/প্রিন্স