হোল্ডিং ট্যাক্স ও লাইসেন্স ফি’বাবদ ১৯ লাখ টাকা আদায়

হোল্ডিং ট্যাক্স,ট্রেড লাইসেন্স ফি, চসিক,আদায়

মহানগরের খবর : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি আদয়ের লক্ষ্যে অব্যাহত রয়েছে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান।

আজ বুধবার রাজস্ব সার্কেল-৭ ও ৮ এর আওতাধীন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। পৃথক এসব অভিযানের নের্তৃত্ব দিয়েছেন সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী ও স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট জাহানারা ফেরদৌস।

তারা জানায়, চসিক সার্কেল-৭ এর আওতাধীন উত্তর আগ্রাবাদ ও রামপুর এলাকায় হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ ১৩ লাখ ৭৬ হাজার ৫ শত ৮৮ টাকা এবং সার্কেল- ৮ এর আওতাধীন দক্ষিণ হালিশহর এলাকায় ৩ লাখ ৭২ হাজার ৩ শত ৪৪ টাকাসহ সর্বমোট হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ ১৭ লাখ ৪৮ হাজার ৯ শত ৩২ টাকা আদায় করা হয়।

একই দিনে সার্কেল ৭ এর এলাকায় ট্রেড লাইসেন্স বাবদ ৭২ হাজার ৫ শত ১৫ টাকা এবং সার্কেল ৮ এর এলাকায় ট্রেড লাইসেন্স বাবদ ৫৯ হাজার ৮ শত ৬০ টাকাসহ মোট ১ লাখ ৩২ হাজার ৩ শত ৭৫ টাকা ট্রেড লাইসেন্স বাবদ আদায় করা হয়।

এছাড়াও উভয় অভিযানে ট্রেড লাইসেন্স বিহীন ব্যবসা পরিচালনা দায়ে ছয়টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করার তথ্য দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ। তারা সিটি কর্পোরেশনের বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি আদায়কল্পে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায়।

অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেটগণকে সহায়তা করেন সিটি কর্পোরেশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সদস্যরা।

ডিখ/সৃষ্টি