‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ গানের গীতিকার আর নেই

‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ সহ অনেক কালজয়ী গানের গীতিকার ফজল এ খোদা আর নেই। রোববার (৪ জুলাই) ভোর ৪টায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেছেন। ৮১ বছর বয়সী এই গীতিকার করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তিন পুত্র, স্ত্রী ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন তিনি। তাকে রায়ের বাজার কবরস্থানে দাফন করা হবে।

বাংলাদেশ বেতারের সাবেক পরিচালক এই গুণী মানুষটির জন্ম ১৯৪১ সালের ৯ মার্চ, পাবনার বেড়া থানার বনগ্রামে। মুহাম্মদ খোদা বক্স এবং মোসাম্মাৎ জয়নবুন্নেছার প্রথম সন্তান তিনি। ১৯৬৩ সালে বেতারের তালিকাভুক্ত গীতিকার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। ১৯৬৪ সালে তালিকাভুক্ত হন টেলিভিশনে। শিশু কিশোর সংগঠন শাপলা শালুকের প্রতিষ্ঠাতা ফজল-এ-খোদা ‘মিতা ভাই’ নামেও পরিচিত।

তার লেখা বহু গান শ্রোতাপ্রিয় হয়েছে। এর মধ্যে-‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ মুক্তিযুদ্ধে সাত কোটি মানুষকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। ১৯৭১-এ অসহযোগ অন্দোলন চলাকালে তার লেখা গণসংগীত ‘সংগ্রাম, সংগ্রাম, সংগ্রাম চলবে, দিন রাত অবিরাম’ তৎকালীন টেলিভিশন প্রচার করে।

ফজল-এ-খোদার লেখা উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে আরও রয়েছে-‘যে দেশেতে শাপলা শালুক ঝিলের জলে ভাসে’, ‘ভালোবাসার মূল্য কত আমি কিছু জানি না’, ‘কলসি কাঁধে ঘাটে যায় কোন রূপসী’, বাসন্তী রং শাড়ি পরে কোন রমণী চলে যায়’, আমি প্রদীপের মতো রাত জেগে জেগে’, ‘প্রেমের এক নাম জীবন’, ‘ভাবনা আমার আহত পাখির মতো, পথের ধুলোয় লুটোবে’ প্রভৃতি।

আজাদ রহমান, আবদুল আহাদ, ধীর আলী, সুবল দাস, কমল দাশ গুপ্ত, আবেদ হোসেন খান, অজিত রায়, দেবু ভট্টাচার্য, সত্য সাহা প্রমুখের মতো সঙ্গীতজ্ঞ ফজল-এ-খোদার লেখা গানে সুর করেছেন। কণ্ঠ দিয়েছেন বশীর আহমেদ, আবদুল জাব্বার, মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, রথিন্দ্রনাথ রায়ের মতো কিংবদন্তি শিল্পীরা।

মূলত ছড়া দিয়ে তার লেখালেখি শুরু। তার ছড়াগ্রন্থের সংখ্যা ১০টি আর কবিতা গ্রন্থ ৫টি। এছাড়াও গান, নাটক, প্রবন্ধ, শিশু সাহিত্য ইত্যাদি নিয়ে তার সর্বমোট বইয়ের সংখ্যা ৩৩টি।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপরিবারে নৃশংসভাবে নিহত হলে ফজল-এ-খোদা তার দুঃখ এবং ক্ষোভ গানের মাধ্যমে প্রকাশ করেন, যা সেই সময়ের কল্পনাতীত ঘটনা। বশীর আহমদের সুরে মোহাম্মদ আবদুল জাব্বারের গাওয়া সেই গানটি হলো-‘ভাবনা আমার আহত পাখির মতো/ পথের ধুলোয় লুটোবে/ সাত রঙে রাঙা স্বপ্ন-বিহংগ / সহসা পাখনা লুটোবে/ এমন তো কথা ছিলো না’। যা ১৯৭৬ সালে রেকর্ড ও বেতারে প্রচারিত হয়।

প্রায় ৫০ বছরের ক্যারিয়ারে ফজল-এ-খোদা অসংখ্য দেশাত্মবোধক, আধুনিক, লোক সংগীত ও ইসলামী গান লিখেছেন। তার লেখা ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ ২০০৬ সালে বিবিসির সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাংলা গানের সেরা ২০টি গানের তালিকায় ১২তম (দ্বাদশ) স্থান পায়।

ফজল-এ খোদা’র মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তিনি বলেছেন, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম গানটি বিবিসি’র জরিপে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাংলা গানের তালিকায় সেরা ২০ গানের মধ্যে ১২তম স্থান পেয়েছে। অসংখ্য জনপ্রিয় গান লিখে গীতিকবি ফজল-এ খোদা সমৃদ্ধ করেছেন বাংলা গানকে।

এক শোক বার্তায় জিএম কাদের বলেন, তার লেখা কালজয়ী এই গানটি একাত্তরে স্বাধীনতা বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে প্রচার হওয়ায় রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধারা দারুণভাবে উজ্জীবিত হয়েছিল। শিশু সংগঠক ফজল-এ খোদা শিশুদের জন্য লিখেছেন অসংখ্য বই। এই গীতিকবি দীর্ঘকাল বেঁচে থাকবেন তার কর্মের মাঝে।

ফজল-এ খোদা’র মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির আহ্বায়ক শেরিফা কাদের।