সিরিয়ায় আসাদ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ১৮

সিরিয়ায়-আসাদ বাহিনীর-ক্ষেপণাস্ত্র হামলায়
সংগৃহিত ছবি

দেশের খবর,বিশ্ব।। যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার দেরা প্রদেশে সরকারি বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কমপক্ষে ১৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

সেনাবাহিনীর ফাঁড়িতে বিদ্রোহীদের হামলার পরই দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশের বেসামরিক এলাকায় হামলা চালায় রুশ সমর্থিত আসাদ বাহিনী।

বৃহস্পতিবার দেরা প্রদেশের আবাসিক স্থাপনা লক্ষ্য করে ভূমি থেকে দফায় দফায় ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে সিরীয় বাহিনী। এতে একাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়। দেশটির স্বেচ্ছাসেবক হোয়াইট হেলমেটসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বোমা হামলায় অনেকে হতাহত হয়েছেন।

হোয়াইট হেলমেটসের মুখপাত্র মুনির মুস্তফা কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবারের হামলায় ১৮ জন মারা গেছেন।

গত সোমবার থেকেই সেখানকার বিদ্রোহী গোষ্ঠী ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে সংঘাত দেখা দিয়েছে। সিরিয়ার একটি সেনাবাহিনীর ফাঁড়িতে হামলার জেরে দেরা আল-বালাদ এলাকায় হামলা চালায় সিরীয় বাহিনী।

সেনাবাহিনী এবং স্থানীয়রা বলছে, বৃহস্পতিবার দেরা প্রদেশের একটি সেনা চৌকিতে মর্টার হামলা চালায় বিদ্রোহীরা। আরও বেশ কয়েকটি জায়াগায় একই ঘটনা ঘটে। এতে ওই অঞ্চলে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে আসাদ সরকার।

২০১১ সাল থেকে গৃহযুদ্ধে বিপর্যস্ত সিরিয়া। রাশিয়ার সহায়তায় এখন পর্যন্ত দেশটির অধিকাংশ প্রদেশ থেকে বিদ্রোহী এবং জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস মুক্ত করতে পেরেছে বাশার আল-আসাদ সরকার। দীর্ঘদিনের যুদ্ধে লাখ লাখ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। বাস্তচ্যুত হয়েছেন বহু মানুষ।

ডিখ/প্রিন্স