ভারতে আঘাত হেনেছে তাওকতে, লণ্ডভন্ড শতাধিক গ্রাম-একাধিক প্রাণহানি

ভারতে, ঘূর্ণিঝড়, তাওকতে, লণ্ডভন্ড,প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক : ভারতে গুজরাট উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় তাওকতে। ঘণ্টায় প্রায় ১৯০ কিলোমিটার বেগে কর্নাটক ও গোয়া রাজ্যেও আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড়টি। এটি এখন ঘণ্টায় ১৮৫ কিলোমিটার বেগে অগ্রসর হচ্ছে।

ঘুর্ণিঝড়টির আঘাতে লণ্ডভণ্ড হয়েছে শতাধিক গ্রাম। ঘূর্ণিঝড় তাওকতের প্রভাবে ভারতের মহারাষ্ট্রে কমপক্ষে ছয়জন মারা গেছেন এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

মুম্বাইতেও ঘূর্ণিঝড়টি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১১৪ কিলোমিটার বেগে আঘাত হেনেছে। আজ সোমবার (১৭ মে) রাতে এক টুইট বার্তায় তথ্যটি জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। খবর প্রকাশ করেছে এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রচণ্ড বাতাসের সঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে শহরটির অনেক স্থান তলিয়ে গেছে। ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। তীব্র বাতাসের কারণে বান্দ্রা-ওয়ারলি সমুদ্র যোগাযোগটিও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টি পোরবন্দর ও মহুভার মধ্যবর্তী উপকূল অতিক্রম করবে। এ সময় ঘণ্টায় এটি ১৫৫ থেকে ১৬৫ কিলোমিটার বাতাসের গতি বজায় রাখবে। আশপাশের অঞ্চলে অত্যন্ত শক্তিশালী বাতাস বইছে।

কর্নাটকের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (কেএসডিএমএ) জানিয়েছে, তওকতের প্রভাবে রাজ্যের ৭৩ গ্রামে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভারতের গোয়া রাজ্যের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলীয় এলাকা পানজিমেও আঘাত হেনেছে তাওকতে।

তাওকতের প্রভাবে উপকূলীয় রাজ্য কর্ণাটকে ৮ জন মারা গেছেন। দক্ষিণ কন্নড়, উদুপি, উত্তরা কন্নড়, কোডাগু, চিক্কামাগুরু, হাসান ও বেলাগাভি এই সাতটি জেলার ১২১ গ্রাম ঘূর্ণিঝড়ে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলেও কর্নাটকের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ডিখ/সৃষ্টি